Home   |   About   |   Terms   |   Contact    
RiyaButu
A platform for writers

ব্রজলাল


বাংলা ছোট গল্প


All Bengali Stories    35    36    37    38    39    40    41    42    43    (44)    45   

হরপ্রসাদ সরকার, ধলেশ্বর-১৩, আগরতলা







ব্রজলাল
বাংলা ছোট গল্প
- হরপ্রসাদ সরকার, ধলেশ্বর-১৩, আগরতলা
০৩-০৩-২০১৯ ইং


◕ Send a story and get ₹ 200/- Details..
◕ Bengali Story writing competition. Details..


এক শহরে এক মিঠায়ের দোকান ছিল। ব্রজলাল আর কেশবলাল মিলে ঐ দোকান চালাত। মিষ্টির গুনাগুণ ছিল ভাল। দূর-দূর থেকে লোক আসত। অনেক টাকার বেচা-কেনা হতো। রোজকার মিষ্টি রোজই শেষ হয়ে যেত। দোকানের নাম দূর-দূর পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ল।

এক সময় এক বিশেষ কাজে কিছুদিনের জন্য কেশবলাল পাশের শহরে চলে যায়। কেশবলাল চলে যাবার কয়েকদিন পরের ঘটনা-
একদিন ব্রজলাল তার এক খদ্দেরের মুখে শুনল, রাজ্য ব্যবসা-বাণিজ্যের দিন খুব খারাপ আসছে , খুব খারাপ! রাজার এমন সব নতুন-নতুন আদেশ আসছে যে, ব্যবসাই আর করা যাবে না! সব শেষ, সব শেষ!

খদ্দেরটি কেন এমন কথা বলল, সেইই জানে। কিন্তু ব্রজলালের মনে তা ঘর করে গেল। সে সব সময় মনে-মনে ভাবতে লাগল, "ঠিকই খারাপ দিন আসছে, ঠিকই খারাপ দিন আসছে।" একথা ভেবে-ভেবে প্রায়ই সে মন-মরা থাকে। আগে সে ৫০ সের দুধের মিষ্টি বানাত, এখন ৪০ সের দুধের মিষ্টি বানায়। কারণ, তার মনে ভয়; যদি মিষ্টি বিক্রি না হয়, দেশে তো মন্দা চলছে!



এমন করে-করে তার মিষ্টির গুন-মানও কমতে লাগল। কিছুদিনের মধ্যেই পরিস্থিতি এমন দাঁড়াল যে, ব্রজলাল ৫ সের দুধের মিষ্টি বানায়, তাও সব বিক্রি হয় না। এর ফলে সে মন-প্রাণে খুব ভাবে বিশ্বাস করতে লাগল যে, সত্যিই দেশে ভীষণ মন্দা চলছে। তাই মিষ্টি আর বিক্রি হচ্ছে না। একদম নিরাশ হয়ে গেল সে।

এর বেশ কিছুদিন পর কেশবলাল একদিন ফিরে এলো। দোকানের এই করুন অবস্থা দেখে খুব দুঃখ হল তার। ব্রজলালকে সে কারণ জিজ্ঞাস করল। ব্রজলাল সব কথা খুলে বলল, আরও বলল, "সত্যি ভাই, দেশে খুব মন্দা পড়েছে। এখন আর ব্যবসা করা যাবে না। সব শেষ, সব শেষ!"

বুদ্ধিমান কেশবলাল সব বুঝতে পেরে হেসে বলল “দাদা, তুমি সত্যি বলেছ, মন্দা তো হয়েছিল। কিন্তু দু'মাস আগেই তা চলে গেছে। এখন চারিদিকে আবার নতুন ভাবে সবাই ব্যবসা-বাণিজ্য শুরু করছে। নতুন জোয়ার এসেছে যে! ব্যবসার দিন আবার ফিরে এসেছে দাদা, সে খবর কি কেউ তোমাকে দেয় নি? তুমি মনের আনন্দে আবার ব্যবসা কর! এখন তো ব্যবসার সময়!"

ব্রজলাল প্রথমে এ কথা বিশ্বাস করতে পারেনি। কিন্তু ভাই কি আর মিথ্যা বলবে? তাই সে ভাইয়ের কথা বিশ্বাস না করে পারল না। তার মনে আবার নতুন আলো, নতুন দিশা, নতুন উৎসাহ-উদ্দীপনা ধীরে -ধীরে আসর জমাতে লাগল। মনে নতুন সাহস দেখা দিল। মুখে হাসি ফিরে এলো। সে ভাবতে শুরু করল “আবার আমাদের ব্যবসা আগের মত খুব ভাল চলবে, আগের মত প্রচুর মিষ্টি বিক্রি হবে, দূর-দূর থেকে মানুষ আসবে, খুব ভাল, খুব ভাল।"

সত্যিই তাই হল। আবার দোকানে গ্রাহক আসতে লাগল। ধীরে-ধীরে বিক্রির পরিমাণ বাড়তে লাগল। দেখতে-দেখতে কিছুদিনের মধ্যেই ৫০ সের মিষ্টি বিক্রি হতে লাগল।

একদিন ভয়ে-ভয়ে ব্রজলাল তার ভাইকে প্রশ্ন করল "কি রে , মন্দা কি আবার আসবে ?"

এ কথা শুনে কেশবলাল হেসে উঠল। বলল "দাদা, মন্দা কখনোই কিছু ছিল না। তুমি অন্যের কথায় বিশ্বাস করতে শুরু করেছিলে যে, মন্দা এসেছে, মন্দা এসেছে। তোমার মনের বিশ্বাস, তোমার কাজে দেখা দিল, বিক্রি কমতে লাগল। আবার যেই তুমি ভাবতে শুরু করলে, মন্দা চলে গেছে, মন্দা চলে গেছে, ব্যবসা শুরু হয়েছে, ব্যবসা শুরু হয়েছে; অমনি তোমার কাজে তোমার মনের ভাবনা দেখা দিতে লাগল, বিক্রি বাড়তে লাগল।"

◕ Send a story and get ₹ 200/- Details..
◕ Bengali Story writing competition. Details..




পরের 'ছোট গল্প' আগামী রবিবারে প্রকাশিত হবে।
লেখক / লেখিকাদের কাছে স্বরচিত লেখা আহবান করছি।

◕ This page has been viewed 227 times.


ত্রিপুরার পটভূমিতে রচিত গোয়েন্দা গল্প:
মাণিক্য
সর্দার বাড়ির গুপ্তধন রহস্য
প্রেমিকার অন্তর্ধান রহস্য
লুকানো চিঠির রহস্য


All Bengali Stories    35    36    37    38    39    40    41    42    43    (44)    45