Home   |   About   |   Terms   |   Library   |   Contact    
A platform for writers

কৈবর্তনামা

স্বরচিত ছোট গল্প প্রতিযোগিতা, নভেম্বর- ২০২২ একটি নির্বাচিত গল্প

-------- বিজ্ঞপ্তি ----------
■ 'স্বরচিত কবিতা প্রতিযোগিতা, ফেব্রুয়ারি - ২০২৩' Details
--------------------------



List of all Bengali Stories

কৈবর্তনামা
Writer: ফাহাদ হোসেন ফাহিম, বাবা: মোক্তার হোসেন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহ, বাংলাদেশ
স্বরচিত ছোট গল্প প্রতিযোগিতা, নভেম্বর- ২০২২ একটি নির্বাচিত গল্প


## শ্রাবণের শেষ হতে-না হতেই ভাদ্র এবার আগে-ভাগে আসার জন্য উঠে-পড়ে লেগেছে। ভাদ্রের ঔদ্ধত্য আশেপাশে তাই গোমরা মুখো। ওরা কেন যেন ভাদ্রের বশ্যতা মেনে নিতে পারছে না, ঠিক মহাজনের মত। তবুও মেনে নিতে হয়। শ্রাবণের শেষ বৃষ্টিতে ওদের বাড়ির আঙিনার ফলফুলের গাছগুলো যেন বর-কনের মত সেজে ওঠেছে। ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হলেই ওভাবে আজকে হয়ত খেঁকশিয়ালের বিয়ে হচ্ছে। আনন্দে বিবশ হয়েও চেয়ে দেখে সুবঙ্কিম রংধনুর মুখবিবর। চপল মতি এক ডাহুকী উদ্ভিন্ন কচুরিপানায় বসে মাছ শিকার করছে। সেদিকে খেয়াল নেই ওর। হঠাৎই বাবার শব্দে টনক নড়ে। ফাঁস জালটা আলতো করে তুলতেই ফরফর করে নধর দেহী অনেকগুলো মাছ-নৌকার পাটাতনে লাফাতে থাকে। কিন্তু মাছগুলোকেও পুনরায় নদীতে ছেড়ে দেয়। ঠিক তখনই চেঁচিয়ে ওঠে বাবা। ও বলে, " জাইটকা মাছ ধরোন যাইব না আব্বা।"

"মাছ তো মাছই, জাইটকা আর মাইটকা সবই তো এক।"

"সব এক না।"

কিন্তু বাবা ওর কথা শুনে না। ইলিশের সাথে-সাথে জাইটকা মাছও পড়ে বাবার জালে।

বিকেলে মাছ নিয়ে আড়তে ফিরে ওরা। মহাজন পঁচিশটা মাছের বিনিময়ে তিন'শ টাকা দিয়েছে মাত্র। বাবার পিছনে হাঁটতে-হাঁটতে লুঙ্গির গোছার ভেতর থেকে একটা ইলিশ-মাছ বের করে ও বলে, "এইডা আমি খামু, পলায় রাকছি।"

বাবা চোখ রাঙিয়ে তাকাতেই ও বলে, "হারা দিন খাইটা মাছ ধরলাম আমরা। আর সব নিয়া নিল মহাজন?"

"নিবই তো। জাল, নৌকা সবই তো মহাজনের।"

"তাই বইলা সব নিব!! আমাগো কি লাভ?"

বাবা কিছু বলে না। বাড়ি ফিরে মায়ের হাতে মাছটা দিয়ে ও বলে, "জানো মা, সকালে যাওনের সময় সুখীর লগে দেহা অইছে।"

মা স্মিত হাসি দিয়ে বলে, "কট্টুক বড় অইছে আমাগো সুখী?"

"অনেক বড় অইছে মা।"

মা বলে, "আইজকা যদি অভাব না থাকত.... "

সুখী ওর ছোট ভাই। ভালো নাম সুখন। অবশ্য পালক বাড়িতে সুখীর নাম শিমুল। ওর নাম নাসির। সবাই ডাকে পিচ্চি-নাসু। বয়স চৌদ্দ বছর। সে গাঁয়ের নিয়ম জাইল্যার-ছেলে জাইল্যা, মহাজনের ছেলে হবে মহাজন। কিন্তু খেলতে যাওয়ার নাম করে ও স্কুলের পেছনে বসে-বসে মাস্টারের পড়া শোনে। সেখানেই ও শুনেছে জাইটকা-মাছ ধরা নিষিদ্ধ।

সেদিন রাতে বিপিন দারোগা এসে পোকা-কাকাকে ধরে নিয়ে যায়। অপরাধ জাইটকা ধরেছে। কিন্তু সে জাইটকার টাকা যে বক-ধার্মিক মহাজনেরা গিলে। শুধু তা-ই না মহাজনই ওদেরকে জাইটকা ধরতে বাধ্য করে। কিন্তু পুলিশ আসলে মহাজন বিড়াল-তপস্বী সাজে আর সব দোষ দেয় ওদের উপর। এসব চিন্তা করতে-করতে খুব হেঁড়ে হয়ে ওঠে ওর মনটা।

#
সে বার নৌকা নিয়ে সবাই ইলিশ ধরতে বের হয়। ঢের মাছ নিয়ে রাতে আড়তে ফিরে ওরা। রমুভাই মহাজনের কাছে একটা বড় ইলিশ চাইতেই বলে, "জাইল্যার পেটে কি বড় মাছ সয়!!"

রমুভাই মিনতি করে বলে, "পোলাডায় ডাঙর একটা ইলশা খাইতে চাইছে, একটা দেন মহাজন..."

কিন্তু মহাজন দেয় না। রমুভাইয়ের পর ওদের পালা। কিন্তু ও বাবাকে মাছ দিতে দেয় না। মহাজন ক্ষেপে গিয়ে বলে, "জাইল্যার পুতের তো সাহস কম না!!"

ওকে খুব জোরে লাথি মারে। বাবা মহাজনের পায়ে পড়লে বাবাকেও মারে। ও মহাজনের পায়ে খুব জোরে কামড় দিতেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে। কাঁদতে-কাঁদতে ও বলে, "আইজ থেইকা একটা মাছও দিমু না আমরা। আমাগো মনও চায় বড় মাছ খাইতে, আমাগোও স্কুলে পড়তে মন চায়।"

রমুভাই ওর কথার সাথে কথা মিলায়। ওদের দেখা-দেখি সমস্ত জেলে এসে যোগ দেয় ওদের দলে। এদিকে জেলেদের তোপের মুখে পড়ে মহাজন ওদের সব কথা মেনে নিতে বাধ্য হয় এবং পোকা-কাকাকে ছাড়িয়ে আনে জেল থেকে। দেখতে-দেখতে কেটে যায় দুটি বছর। ভোরের মোলায়েম আলো ছুঁয়ে যায় মোহনপুর গ্রামের শরীর। পঙ্কিল মেঠো পথ ধরে স্কুল ড্রেস পরে জেলে-পল্লীর ছেলে-মেয়েরা স্কুলে যায়। সকালের তরুণ রাঙা সূর্য ওর দিকে তাকিয়ে মুচকি হেসে বলে —
"জল-পুত্রদের খালি গায়ে পড়াইলি তুই জামা,
জেলেদেরও মানুষ বানাইলি, লিখলি কৈবর্তনামা।"
( সমাপ্ত )


Next Story

List of all Bengali Stories


## Disclaimer: RiyaButu.com is not responsible for any wrong facts presented in the Stories / Poems / Essay / Articles / Audios by the Writers. The opinion, facts, issues etc are fully personal to the respective Writers. RiyaButu.com is not responsibe for that. We are strongly against copyright violation. Also we do not support any kind of superstition / child marriage / violence / animal torture or any kind of addiction like smoking, alcohol etc. ##


◕ RiyaButu.com, এই Website টি সম্পর্কে আপনার কোনও মতামত কিংবা পরামর্শ, কিংবা প্রশ্ন থাকলে নির্দ্বিধায় আমাদের বলুন। যোগাযোগ:
E-mail: riyabutu.com@gmail.com / riyabutu5@gmail.com
Phone No: +91 8974870845
Whatsapp No: +91 6009890717