Home   |   About   |   Terms   |   Contact    
Read & Learn
 

কবীর বানী

কবীর বানী


An offer to make a Website for you.

hostgator



◕ কবীর বানী ◕

যে দড়িতে সংসার বাঁধা, সে ফাঁদে পরিস না কবীর।
লবন বিনা আটা ফিকা, ফিকা ভজন বিনা শরীর।।

সওদাগরের বলদের পিঠে, বোঝা চিনি-সন্দেশ।
তবু সে খায় ভুসি, বিনা গুরু উপদেশ।।

রাত গেল শুয়ে শুয়ে, দিন কাটালি খেয়ে।
হীরার মত এ জীবন, বেচলি জলের দর দিয়ে।।

ধীরে ধীরে রে মন , ধীরে সব কিছুই হয়
মালি দিলেও শ কলসী জল, ঋতু এলেই ফল হয় ।।

মাটি কয় কুমারকে, আমায় কেন দলো তুমি ?
এক দিন আসবে এমন, তোমায় দলবো আমি ।।

মায়া ছায়া এক সমান , বিরলে জানে তায়
যে পালায় তার পিছন ভাগে , সামনে এগোলে ঘুমায় ।।

বড় হলে কি হবে! যেমন গাছ খেজুর -
পথিককে ছায়া নয় , ফল ও হয় অনেক দূর ।।

বড়কে যদি লঘু বলি , তার কিছুই কমে না যায়
গিরিধরকে মুরলীধর, তার কম হয়নি তো ভাই ।।

নিন্দুককে কাছে রাখ , আঙ্গন-কুঠির ছায়ায়
বিনা জল-সাবানে সে নির্মল করবে তোমায় ।।

কেন করছিলে তখন ? এখন কেন হায় হায়?
লাগালে বাবুল গাছ, আম কি পাওয়া যায় ?

যে ঘটে প্রীত না প্রেম রস, রসনাতে নাই রাম -
তে নর এই সংসারেতে , আগাছা এক বে-কাম ।।

কাল করবে তো আজ কর, আজ করবে তো এখন
পলকেই প্রলয় হয়ে যাবে , কি বাহানা করবে তখন ?

সাধুর জাতি না দেখ , দেখ তার জ্ঞান ।
তলবার কেমন তা দেখ , পড়ে থাকুক তার মিয়ান ।।

ঘুমন্ত সাধুকে জাগালে , করবে নাম জাপ ।
ঘুমন্তই ভাল তিন জন, রাজা সিংহ আর সাপ ।।

প্রেমরস যে পান করে , শিষ করে দান ।
লোভী শিষ দেয় না কভু , করবে প্রেমের বখান ।।

কবীর তন পাখী হল, মনের কথাতে উড়ে যায়।
যে যেমন সঙ্গ করে, সে তেমন ফল পায় ।।

যেমন তিলে তেল থাকে, কাঠের মাঝে আগ ।
তোর ঈশ্বর তোর মাঝেই, জাগতে পারলে জাগ ।।

খারাপ মানুষ খুঁজতে গিয়ে, কাউকে পেলাম না ।
নিজের মাঝে দেখে পেলাম, আমার চেয়ে কেউ খারাপ না ।।

গাটের জিনিস হাতে নাও, হাতের জিনিস দাও
নাই আগে বাজার-ব্যাপারী, লেন-দেন এখানেই সেড়ে নাও ।।

এমন কথা বল যেন, মনের দোষ হয় ক্ষয়
অন্যকেও শীতল করে, নিজেও স্নিগ্ধ হয় ।।

কহে কবীর দে তু, জব তক আছে দেহ
কে বলবে দিতে আর, যখন থাকবে না আর দেহ ।।

সাধু এমন চাই, যেমন সুপ রে ভাই ।
সার-সার কে ধরে রাখে, থোথা দে উড়ায় ।।
(সুপ = শস্যাদি ঝাড়বার কুলা )

করো না নিন্দা তিনকা কে, পা তলে যে রয়।
কখনো উড়ে পড়লে চোখে, অসীম যন্ত্রনা হয়।।

মালা জপে যুগ গেল, ফিরল না মনের ফের।
হাতের মালা ফেলে দে রে, মনের মালা ফের।।

সঠিক খরচে ধন ঘটে না, যেমন ঘটে না নদীর নীর।
নিজের চোখেই দেখে নাও, কহে দাস কবীর।।

কবীর সেথায় না যাইয়ো, যেথায় অভিমানী গুনীর গ্রাম।
বসতে কখনো বলবে না, জিজ্ঞেসিবে হাজার নাম।।

যেমন খাইবে খাবার, তেমন হবে মন।
যেমন জল পান, তেমন হবে কথন।।

গালিতে কি হানি? সহিতে পারলে ওরে ।
হাজার কাজ হয়ে যায়, শত্রু এসে পা ধরে ।।

পরের দোষ দেখে আমি, হাসি বারে বার।
না দেখি নিজের দোষ, আদি অন্ত নাই যার ।।

যে খোঁজে সেইই পায়, গভীর জলের মনি।
ডুবার ডরে আছি পারে, যেই কি তেমনি।।

অতি না ভাল বলা, অতি না ভাল চুপ।
অতি না ভাল বর্ষা, অতি না ভাল ধুপ।।

দুর্লভ মানুষ জনম, দেহ না বারেবার।
ঝড়াপাতা ঝড়ে পড়ে, ডালে না লাগে আর।।

কবীর দাঁড়িয়ে বাজারে, জানে সবার খৈর।
না কারো সাথে দোস্তী, না কারো সাথে বৈর।।


Top of the page

Amazon & Flipkart Special Products

   


Top of the page