Home   |   About   |   Terms   |   Contact    
A platform for writers
 

ত্রিপুরার ইতিহাস
( পর্ব ১১)

History of Tripura

◎ All Articles On Tripura     ◎ All Other Articles



This article is regarding the History of Tripura.
Last updated on: .



ত্রিপুরার হাতি, Elephants of Tripura
■ ত্রিপুরার ইতিহাস
( পর্ব ১১)



◕ Your Story ₹ 500/- Details..
◕ Bengali Story writing competition. Details..


◕ ত্রিপুরার হাতি, Elephants of Tripura

প্রাচীন কালে ভারতের বহু জায়গার বন-জঙ্গলে প্রচুর হাতি পাওয়া যেত, আজও পাওয়া যায়। কিন্তু সেই অতীত কাল থেকেই ত্রিপুরার হাতির খুব সুনাম ছিল, খুব নাম-ডাক ছিল। প্রাচীন কাল থেকেই এটা সুবিদিত ছিল যে, ত্রিপুরার হাতি দেখতে যেমন সুন্দর, তেমনি কাজে-কর্মে এবং বিশেষত যুদ্ধে ভারতের যে কোনও প্রান্তের হাতিদের চেয়ে সর্বোৎকৃষ্ট। ফলস্বরূপ, এই হাতি লাভের জন্য বাংলা থেকে শুরু করে দিল্লীর সুলতান পর্যন্ত ত্রিপুরাকে বহুবার আক্রমণ করেছিলেন, অথবা হাতিকে কর হিসেবে প্রদান করার জন্য ফরমান জারি করেছিলেন। মোগল সম্রাট আকবর থেকে ঔরঙ্গজেব, সবাই ছিলেন একই পথের পথিক।

সম্রাট আকবরের সভাসদ আবুল ফজল পর্যন্ত উনার 'আইন-ই-আকবরি' গ্রন্থে ত্রিপুরার হাতির কথা উল্লেখ করেছেন এবং ত্রিপুরার হাতির প্রশংসা করেছেন। তিনি সেথায় লিখেছেন, ভারতের অন্য প্রান্তের হাতির তুলনায় ত্রিপুরার হাতি সর্বোৎকৃষ্ট। সম্রাট আকবরের রাজত্বকালে ত্রিপুরার মহারাজ ছিলেন বিজয়মাণিক্য।

মহারাজ যশোধরমাণিক্যের রাজত্বকালে মোগল সম্রাট জাহাঙ্গীর, মহারাজের কাছে ফরমান পাঠিয়েছিলেন ত্রিপুরার হাতি, কর হিসেবে মোগলদের দেওয়ার জন্য। কিন্তু মহারাজ সেই কর দিতে অস্বীকার করায় জাহাঙ্গীরের সৈন্যরা ত্রিপুরা অভিযান করেছিল।

পরবর্তী কালে আবার কল্যাণমাণিক্যের শাসনকালে সম্রাট শাহজাহান, মহারাজের নিকট কর হিসেবে হাতি প্রদান করার জন্য ফরমান জারি করে পাঠান। মহারাজ কল্যানমাণিক্যও সেই ফরমান অস্বীকার করেছিলেন।

ত্রিপুরার অনেক যুদ্ধ-সন্ধি করা হয়েছিল হাতি আদান-প্রদানকে সামনে রেখে। ত্রিপুরার মহারাজরা হাতিকে যেমন কর হিসেবে ব্যবহার করতেন তেমনি উপহার হিসেবেও হাতি প্রদান করতেন। যেমন:



১২৭৯ খ্রীঃ মহারাজ রত্ন ফা, সুলতান মোঘিসুদ্দিন তুগরলকে ১০০ টি হাতি ও একটি 'ভেক মণি' প্রদান করেছিলেন। এতে খুশি হয়ে সুলতান তুগরল, মহারাজ রত্ন ফা'কে মাণিক্য উপাধি প্রদান করেন। মহারাজ রত্ন ফা, রত্নমাণিক্য নাম ধারণ করেন। সেই তখন থেকেই ত্রিপুরার মহারাজেরা মাণিক্য উপাধি ধারণ করে আসছেন। তবে এই 'ভেক মণি' সম্পর্কেও একটি সুন্দর ইতিহাস প্রচলিত আছে, যথা স্থানে তা বর্ণিত হবে।

আবার কল্যানমাণিক্য একবার মথুরা ও উড়িষ্যা থেকে কিছু নিষ্ঠাবান বেদজ্ঞ ব্রাহ্মণ এনেছিলেন কিছু বিশেষ কাজের জন্য। কার্যসিদ্ধির পর তিনি সেই ব্রাহ্মণদের পুরস্কার স্বরূপ ধন-সম্পদের পাশাপাশি হাতিও প্রদান করেছিলেন।

সাধারণত ত্রিপুরার 'বড়-ঠাকুর' উপর দায়িত্ব থাকত হাতি শিকার করার।

◕ Your Story ₹ 500/- Details..
◕ Bengali Story writing competition. Details..




Next Part
ত্রিপুরার ইতিহাস সম্পর্কে জানুন প্রতি সোমবার ও শুক্রবার।

ত্রিপুরা সম্পর্কিত আরও কিছু তথ্য:
পর্ব ১     পর্ব ২     পর্ব ৩     পর্ব ৪     পর্ব ৫     পর্ব ৬     পর্ব ৭     পর্ব ৮     পর্ব ৯     পর্ব ১০    

◕ This page has been viewed 239 times.